ঢাকা, বুধবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

দেশি ভালো গরু চিনবেন যেভাবে

স্বাস্থ্য ডেস্ক
দেশি ভালো গরু চিনবেন যেভাবে
Advertisement (Adsense)

যে কোনো অনুষ্ঠানে দেশি গরুর চাহিদা বেশি। কোরবানিতে এ চাহিদা যেন অরও বেড়ে যায়। অনেকে পশুর হাটে গিয়ে তন্ন তন্ন করে দেশি গরু খোঁজেন। কেনার পরও তা দেশি গরু কি না সে আশঙ্কায় থাকেন। আর দেশি গরু ভেবে বিদেশি গরু কিনে অনেকে প্রতারিতও হন। এজন্য ক্রেতারাও জানতে চান, কিভাবে চেনা যাবে দেশি গরু।

পশু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দেশি পশুর মূল বৈশিষ্ট্য হচ্ছে এরা ছোট ও মাঝারি আকৃতির। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেশি পশু এক রঙের হয়। এদের পা চিকন ও শিং বড় হয়। এসবের বাইরেও পশু বিষয়ে অভিজ্ঞদের মতামত নিয়ে কোরবানি দেয়ার জন্য দেশি গরু কেনার পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

রাজধানীর পশুর হাট সম্পর্কে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এবার ২২টি অস্থায়ী কোরবানি পশুর হাট বসছে। পশু ব্যবসায়ীদের মতে, অস্থায়ী হাটগুলোতে বেশিরভাগ দেশি গরু আসে। আর গাবতলী হাটে বিদেশি গরুর আধিক্য থাকে বেশি। এজন্য দেশি গরু যারা কিনতে চান, অস্থায়ী হাট থেকে কিনলে তাদের প্রতারিত হওয়ার আশঙ্কা কম থাকে। দেশি গরুর মাংসের স্বাদও বিদেশি গরুর চেয়ে ভালো।

বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি গোলাম মোর্তুজা মন্টু বলেন, দেশি গরু চেনা খুব সহজ। আকার-আকৃতি বিদেশি গরুর তুলনায় অনেক ছোট। বিশাল আকৃতির গরুগুলো সাধারণত বিদেশি। গরুগুলোর শিং ছোট হয়। অন্যদিকে দেশি গরুর শিং বড় আর পায়ের দিকে মাংস কম থাকে। পা চিকন হয়।

পশু বিশেষজ্ঞ রবিউল আলম বলেন, দেশি গরুর আকার-আকৃতি ছোট। কলকাতা, আসাম, ত্রিপুরা এলাকার গরুও একই আকৃতির। এসব পশুর মাংসের স্বাদও একই ধরনের। এ কারণে এসব এলাকার গরু ও দেশি গরু আলাদা করা সম্ভব হয় না।

আরও পড়ুন

Advertisement (Adsense)