ঢাকা, বুধবার, ২০ নভেম্বর ২০১৯, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মাথার চুল কি সব গেল?

রূপচর্চা ডেস্ক
মাথার চুল কি সব গেল?
Advertisement (Adsense)

অনেকেরই অভিযোগ আগে মাথা ভর্তি চুল ছিল, এখন আর চুল আগের মত ঘন নেই। আগের মত সুন্দরও নেই। দুটি কারণে চুল পাতলা হয়ে যায়। এক তো চুল পড়া, আর দ্বিতীয় কারণ হচ্ছে চুলের মান খারাপ হয়ে যাওয়া। অর্থাত্‍ চুলগুলো আর আগের মত মজুবত, স্বাস্থ্যবান নেই। বিশেষ করে চুলের মাঝখানে কিংবা ডানে-বায়ে যেখানে সিঁথি টানা হয় সেখানকার চুলগুলো অনেক পাতলা হয়ে যায় এবং সিঁথি ক্রমশ চওড়া হতে থাকে। ফলে দেখতেও খারাপ লাগে।

তাই মাথার সামনের চুল পাতলা হয়ে যাওয়া সমস্যা থেকে রেহাই পেতে জেনে রাখুন কিছু টিপস। জেনে রাখুন ১০ টি সহজ টিপস, যা রোধ করবে চুল পাতলা হয়ে যাওয়া থেকে।

আপনার চুল আবারও হয়ে উঠবে ঘন, কালো, সুন্দর।

  • গরম জল মাথায় দেবেন না ভুলেও। গরম পানি দিয়ে স্নান করলে চুল ভেজাবেন না।
  • হেয়ার আয়রন, কারলিং আয়রন ইত্যাদি ব্যবহার করা বাদ দিন। চুলকে উত্তাপ দিয়ে স্টাইল করা হয় এমন সব কিছু এড়িয়ে চলুন।
  • ওজন নিয়ন্ত্রণে থাকা ভালো, কিন্ত তাই বলে না খেয়ে থাকবেন না। পর্যাপ্ত পুষ্টি না পেলেই কিন্তু চুল ঝরে যায়।
  • ভেজা চুল তোয়ালে দিয়ে পেঁচিয়ে রাখবেন না। ভেজা চুল বেঁধে রাখবেন না, ভেজা চুলে চিরুনি দেবেন না, আঙ্গুল দিয়েও নাড়াচাড়া করবেন না। ভেজা চুল না শুকিয়ে ঘুমিয়ে যাবেন না।
  • খুব টাইট করে চুল আটকাতে হয়, এমন কোন হেয়ার স্টাইল করবেন না। পিছনের দিকে টেনে চুল বাঁধলে সামনের অংশে চুল ফাঁকা হয়ে যেতে পারে। হেয়ার লাইন দুর্বল হলে এই সমস্যা হতে পারে।
  • চুলে হেয়ার স্প্রে বা জেল ব্যবহার করবেন না। চুলে রঙ করা বা অন্যান্য অত্যাচারও যতটা সম্ভব কম করুন।
  • জন্ম নিয়ন্ত্রণ পিল খাওয়া বাদ দিন।
  • প্রাকৃতিক উপায়ে মাথার খুশকি সব সময় নিয়ন্ত্রণে রাখুন।
  • মাথায় যতটা সম্ভব রোড কম লাগান।
  • চুলে ময়লা হতে দেবেন না। নিয়মিত পরিষ্কার করুন।
  • তেল গরম করে মাথায় ম্যাসাজ করুন। তবে খুব জোরে ম্যাসাজ করবেন না। শুধুমাত্র আঙুলের ডগার সাহায্যে মাথার তালুতে সার্কুলার মোশনে ম্যাসাজ করুন। এতে মাথায় রক্ত চলাচল বাড়ে। ফলে চুল পড়া কমে, সপ্তাহে ২/৩ বার করুন।
  • মাথার তালুতে নিয়মিত হার্বাল হেয়ার টনিক লাগান, যেটা আপনার চুলে মানিয়ে যায়। এছাড়াও কোন ভালো বিউটি সেলুনে গিয়ে ক্লিনিক্যাল স্কাল্প ট্রিটমেন্ট করতে পারেন। এটি হেয়ার গ্রোথে সাহায্য করে। আর এর সাথে নজর রাখতে হবে খাওয়ার দিকেও।
  • অভিজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নিয়ে ভিটামিন ও মিনারেল সাপ্লিমেন্ট নিতে পারেন।

আরও পড়ুন

Advertisement (Adsense)